মেরন সান ও মেরিট বাংলাদেশ কলেজের এইচ এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান সম্পন্ন

নগরীর মেরন সান ও মেরিট বাংলাদেশ কলেজের এইচ এস সি পরীক্ষার্থীদের শতভাগ সাফল্য কামনায় একাদশ শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের আয়োজনে দোয়া মাহফিল ও বিদায় অনুষ্ঠান গত ২৯ মার্চ অধ্যক্ষ ড. মোহাম্মদ সানাউল্লাহ্র সভাপতিত্বে চকবাজার ক্যাম্পাস কলেজ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালের কার্যনির্বাহী কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট লায়ন সৈয়দ মোহাম্মদ মোরশেদ হোসেন। পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফলের লক্ষ্যে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে বক্তব্য রাখেন উপাধ্যক্ষ রাজেশ কান্তি পাল, চিফ একাডেমিক কো-অর্ডিনেটর শিহাব ইকবাল, শিক্ষক মোহাম্মদ শওকত ওসমান, মোহাম্মদ শাহ আলম, হেফাজতুর রহমান, সোমা সেন গুপ্তা প্রমুখ। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন- পরীক্ষার্থী আবদুল আল হাসান লিমন, শাবনুর জাহান মুনিরী, একাদশ শ্রেণির সাজ্জাদ হোসেন ফাহিম ও জয়শ্রী মারমা। বিদায়ী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মানপত্র পাঠ করে একাদশ শ্রেণির ছাত্রী মেহজাবীন শহীদ। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘পিতা-মাতা ও শিক্ষক-শিক্ষিকার স্বপ্ন  পূরণ করতে হলে, প্রতিষ্ঠানের সুনাম ও সম্মানকে অক্ষুণœ রাখতে হলে, এমনকি, নিজের জীবনকে যথাযোগ্য মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করতে হলে বোর্ড পরীক্ষায় সফলতার বিকল্প নেই। তোমরা চাইলে সাফল্যের পথ বেয়ে অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারো।’ পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ মহোদয় বলেন, ‘‘বিদায় প্রত্যেকটা মানুষের জন্য বেদনাদায়ক। তোমাদের আজকের এ বিদায় দুঃখের হলেও পরম আনন্দের, কেননা, আজকের বিদায়ের মাধ্যমে তোমরা একটা বৃহত্তর জগতে পদার্পণ করতে যাচ্ছ। তোমরা অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম শেষ করলেও আমাদের সহযোগিতা ও দোয়া সব সময় তোমাদের সাথে থাকবে। মনে রাখবে, শুধু সার্টিফিকেট অর্জনের জন্য শিক্ষা বাস্তব জীবনে কোন প্রভাব ফেলতে পারে না। একমাত্র প্রকৃত শিক্ষাই পারে সমাজ, দেশ ও জাতির মান উন্নত করতে।’ তিনি আশা করেন, অন্যান্য বারের চেয়ে এবার শিক্ষার্থীরা আরো ভালো ফলাফল অর্জন করবে, কারণ, এবারে বিগত সময়ের বিভিন্ন ঘাটতি পূরণ করে পরীক্ষার্থীদেরকে আরো ভালোভাবে গড়ে তোলা হয়েছে। সভায় পরীক্ষার্থীদের মঙ্গল ও দোয়া কামনা করে মিলাদ পরিচালনা করেন মাওলানা রাহমত উল্লাহ আজাদ। মিলাদের পর প্রতিষ্ঠান প্রধানের হাতে প্রতিষ্ঠানের জন্য গিফট তুলে দেয় দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে বিদায়ী শিক্ষার্থীদেরকে তাবারুক ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শিক্ষিকা স্বপ্না রাণী দত্ত। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
Share on Google Plus

0 comments: